সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৩:৪৩ অপরাহ্ন

ঘোষনা :
  সম্পূর্ণ আইন বিষয়ক  দেশের প্রথম দৈনিক পত্রিকা   দৈনিক ইন্টারন্যাশনাল এর  পক্ষ থেকে সবাইকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা   । 


ধোকা দিয়ে মায়ের কাছ থেকে নিয়ে যাওয়া শিশুকে হাইকোর্টে হাজির করার নির্দেশ

ধোকা দিয়ে মায়ের কাছ থেকে নিয়ে যাওয়া শিশুকে হাইকোর্টে হাজির করার নির্দেশ

 

অাদালত প্রতিবেদক: খুলনার সোনাডাঙ্গায় মায়ের কাছ থেকে নিয়ে যাওয়ার শিশু মৌসুম গাইন নীলকে (২০ মাস) আগামী ৭ জানুয়ারি হাজির করার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে শিশুটির চাচা রিপন ও দাদী শুশমা গাইনকে ওই শিশুকে আদালতে নিয়ে আসার নির্দেশ দিয়েছেন।

আজ বুধবার (২০ ডিসেম্বর) বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি ভীষ্মদেব চক্রবর্তীর হাইকোর্ট বেঞ্চ আগামী ৭ জানুয়ারি শিশুটিকে আদালতে হাজির করতে আদেশ দেন। এই আদেশ পালন করতে হবে শিশুটির বাবা ও দাদিকে।

আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী আইনুন্নাহার সিদ্দিকা।

জানা গেছে, স্বামী স্ত্রী দুইজন দুই ধর্মের অনুসারী। বিয়ের পর স্বামী স্ত্রীর ধর্ম গ্রহণ করেন। কিন্তু স্বামীর পরিবার বিয়ে মেনে নেয়নি। এর মধ্যে তাদের কোল জুড়ে আসে একটি সন্তান যার নাম রাখা হয় মৌসুম গাইন নীল। নিজ পরিবারকে দেখানোর কথা বলে শিশুটিকে স্বামী নিয়ে যাওয়ার পর দীর্ঘদিন দেখা পায়নি স্ত্রী। এরপর বিভিন্ন স্থানে ধর্ণা দিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হন শিশুটির মা ফরিদা ইয়াসমিন।

আদেশের পর নীলের মা ফরিদা ইয়াসমিন মনি বলেন, আমার সন্তানের নাম মৌসুম গাইন নীল। তার বাবা নিউটন গাইন ওরফে লিটন হোসেন হিন্দু ধর্মাবলম্বী। বিয়ের পর সে ধর্মান্তরিত হয়। কিন্তু তার পরিবার আমাদের বিয়ে মেনে নিতে পারেনি। বাচ্চা হওয়ার পর প্রায়ই ওর বাবা নীলকে দাদির বাড়ি নিয়ে যেত। একপর্যায়ে নেওয়ার পর দীর্ঘদিন অতিবাহিত হলেও বাচ্চাকে আর ফেরত দেয়নি। এমনকি স্বামীও আমার সাথে কোনো যোগাযোগ করেনি। এ ঘটনার সুরাহা করতে বিভিন্ন মানবাধিকার সংস্থার কাছে দারস্থ হয়ে কোনো প্রতিকার পাইনি। পরে আমি হাইকোর্ট রিট করেছি।

আবেদনে স্বরাষ্ট্র সচিব, আইজিপি, খুলনার পুলিশ কমিশনার, সোনাডাঙ্গা থানার ওসি, দাকোপ থানার ওসি, শিশুর চাচা রিপন, রিপনের মা সুষমা গাইনকে বিবাদী করা হয়।

এই সংবাদ টি সবার সাথে শেয়ার করুন




দৈনিক ইন্টারন্যাশনাল.কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  © All rights reserved © 2018 dainikinternational.com
Design & Developed BY Anamul Rasel