মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ০৫:৩০ অপরাহ্ন

ঘোষনা :
  সম্পূর্ণ আইন বিষয়ক  দেশের প্রথম দৈনিক পত্রিকা   দৈনিক ইন্টারন্যাশনাল এর  পক্ষ থেকে সবাইকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা   । 
সংবাদ শিরোনাম :
স্বেচ্ছায় যৌনকর্ম করা কী অপরাধ? মা দিবসে মায়েদের নিয়ে ইবি রোটার‍্যাক্ট ক্লাবের ক্রীড়া ও ফল উৎসব নারী শিশু আইনে মিথ্যা মামলায় জামিন ও মুক্তির উপায়! ইবিতে ‘প্লান্ট সাইন্স’ বিষয়ক আন্তর্জাতিক সেমিনার  শিক্ষক-শিক্ষার্থী বিনিময় করবে ইবি এবং তুরস্কের ইগদির বিশ্ববিদ্যালয় চেকের মামলায় সাফাই সাক্ষী বনাম আসামীর নির্দোষিতা! খোকসার জনগনের সাথে ব্যাস্ত সময় কাটাচ্ছেন উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী বাবুল আখতার। খোকসার জনগনের সাথে ব্যাস্ত সময় কাটাচ্ছেন উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী বাবুল আখতার। কুমারখালীতে মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে দুইজন নিহত। ম্যাজিস্ট্রেট ও পুলিশের নিকট দোষস্বীকারে সাক্ষ্যগত মূল্য বনাম বাস্তবতা!
ঢাকার অনশনে প্রায় দেড় শতাধিক শিক্ষক অসুস্থ

ঢাকার অনশনে প্রায় দেড় শতাধিক শিক্ষক অসুস্থ

নিজস্ব প্রতিনিধি : জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অনশনরতদের মধ্যে শতাধিক শিক্ষক অসুস্থ হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। আমরণ অনশনের কারণে অভুক্ত শিক্ষকরা দুর্বল হয়ে পড়ছেন। অসুস্থ শিক্ষকদের স্যালাইন দেয়া হচ্ছে। নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শিক্ষক কর্মচারী ফেডারেশনের নেতৃত্বে এমপিওভুক্তির দাবিতে ৬ষ্ঠ দিনের মত অনশন চলছে।

 

 

 

আন্দোলন পরিচালনা করতে গিয়ে এবার নন-এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক কর্মচারী ফেডারেশনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকও অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। ফেডারেশনের সভাপতি অধ্যক্ষ গোলাম মাহামুদুন্নবী ডলার ও সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ বিনয় ভূষণ রায়কে স্যালাইন দেয়া হয়েছে। সভাপতি অধ্যক্ষ গোলাম মাহামুদুন্নবী ডলার কম্বল গায়ে শুয়ে পড়েছেন।

 

 

শুক্রবার আন্দোলনরত শিক্ষকরা জানান, ফলপ্রসু সাড়া না পাওয়ায় তারা আন্দোলন অব্যাহত রয়েছে। এমপিওভুক্তির কাঙ্ক্ষিত দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে।

 

 

 

ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ বিনয় ভূষণ রায় জানান, আমরা এর আগেও আন্দোলনে ঢাকায় এসেছিলাম। শহীদ মিনারে অবস্থান করেছিলাম। আশ্বাস পেয়ে ফিরে গেছি। কিন্তু সে আশ্বাস আজো পূরণ হয় নি। তাই এবার আমরণ অনশনে নেমেছি।

 

 

 

তিনি আরো বলেন, আর কতো দিন এভাবে থাকা যায়? থাকার কষ্ট, খাওয়ার কষ্টের জন্যই আন্দোলনে নেমেছি। আন্দোলনেও কষ্ট। কিন্তু আমাদের কথা সরকার এখনো বিবেচনা করলো না।

 

 

 

আন্দোলনরত এই শিক্ষক নেতা বলেন, সরকারের কাছে উদাত্ত আহ্বান, শিক্ষকরা দাবি আদায়ে আমরণ অনশন শুরু করেছেন। তাদের শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্যের অবনতি ঘটছে। তাদের দ্রুত দাবি পূরণ করে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ফিরিয়ে নিন। অন্যথায় এখানে সবাই অসুস্থ হয়ে পড়বেন।

এই সংবাদ টি সবার সাথে শেয়ার করুন




দৈনিক ইন্টারন্যাশনাল.কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  © All rights reserved © 2018 dainikinternational.com
Design & Developed BY Anamul Rasel