মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ০৩:৪০ অপরাহ্ন

ঘোষনা :
  সম্পূর্ণ আইন বিষয়ক  দেশের প্রথম দৈনিক পত্রিকা   দৈনিক ইন্টারন্যাশনাল এর  পক্ষ থেকে সবাইকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা   । 
সংবাদ শিরোনাম :
স্বেচ্ছায় যৌনকর্ম করা কী অপরাধ? মা দিবসে মায়েদের নিয়ে ইবি রোটার‍্যাক্ট ক্লাবের ক্রীড়া ও ফল উৎসব নারী শিশু আইনে মিথ্যা মামলায় জামিন ও মুক্তির উপায়! ইবিতে ‘প্লান্ট সাইন্স’ বিষয়ক আন্তর্জাতিক সেমিনার  শিক্ষক-শিক্ষার্থী বিনিময় করবে ইবি এবং তুরস্কের ইগদির বিশ্ববিদ্যালয় চেকের মামলায় সাফাই সাক্ষী বনাম আসামীর নির্দোষিতা! খোকসার জনগনের সাথে ব্যাস্ত সময় কাটাচ্ছেন উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী বাবুল আখতার। খোকসার জনগনের সাথে ব্যাস্ত সময় কাটাচ্ছেন উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী বাবুল আখতার। কুমারখালীতে মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে দুইজন নিহত। ম্যাজিস্ট্রেট ও পুলিশের নিকট দোষস্বীকারে সাক্ষ্যগত মূল্য বনাম বাস্তবতা!
টু পাশ জসীমের বইপ্রেমী হয়ে উঠার গল্প

টু পাশ জসীমের বইপ্রেমী হয়ে উঠার গল্প

 

সিরাজ প্রামাণিকঃ জসিম উদ্দিন, পড়ালেখা করেছেন দুই ক্লাস পর্যন্ত। শৈশব কালে বাবার নিরুদ্দেশের কারনে পড়ালেখা এগুতে পারেননি তিনি। কিন্তু সেই ছোট বেলা থেকে বইয়ের প্রতি দুর্বলতা রয়েই গেছে। আর তাইতো নিজের ঘরের আঙিনায় গড়ে তুলেছেন ছোট্ট একটি সংগ্রহশালা। যার নাম করণ করা হয়েছে পাইকপাড়া-মির্জাপুর কমিউনিটি লাইব্রেরী। গল্প উপন্যাসসহ প্রায় ৬ শতাধিক বই রয়েছে এই লাইব্রেরীতে। জসীম উদ্দিনের বাড়ি কুষ্টিয়া জেলার খোকসা উপজেলা শহর থেকে ঢিল ছোঁড়া গ্রাম পাইকপাড়া-মির্জাপুর। ওর পেশা কাঠমিস্ত্রি। কাজের ফাঁকে যখনই সময় পান তখনই হাতে তুলেন পত্রিকা কিংবা গল্প বা উপন্যাস।

বইয়ের প্রতি নিজের আগ্রহের পাশাপাশি জ্ঞানের বিস্তার ঘটাতে উদ্যোগী হন তিনি। কাঠমিস্ত্রির কাজ করে যা আয় হয় তার একটি অংশ তিনি বইপ্রেমীদের জন্য বরাদ্দ রাখেন।
২০১৬ সালের দিকে নিজ বাড়ির আঙিনায় গড়ে তোলেন ছোট্ট একটি লাইব্রেরী। মেঝে কাঁচা, চার চালা টিনশেড’র এই ঘর এখন তাঁর আদর্শ। ঘরের ভেতর ছোট্ট র‌্যাক, তাতে থরে থরে সাঁজানো বিভিন্ন গল্প, উপন্যাস আর কবিতার বই। রয়েছে বাংলাদেশের ইতিহাসসহ হরেক রকমের বই।

শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি অবসর সময়ে এই লাইব্রেরীতে ছুটে আসেন বয়স্ক মানুষও। জসিম উদ্দিনের ছোট্ট এই লাইব্রেরী এখন পরিণত হয়েছে পরিপুর্ন জ্ঞান পিপাসুদের আড্ডাখানায়।
নিজে পড়েলেখা করতে পারেননি, তবে তাতে তার একটুও আপসোস নেই। কারন এলাকার মানুষের মধ্যে শিক্ষার আলো ফোটাতে পারলেই নিজেকে ধন্য মনে করবেন বলে জানান জসীম। আর তাঁর এই মহৎ উদ্যোগের সারথি হয়েছেন তার সহধর্মীনী পপি খাতুনও। লাইব্রেরীটি এখন বড় পরিসরে গড়ে তোলার স্বপ্ন দেখেন জসীম উদ্দিন। তিনি লাইব্রেরীতে হরেক রকমের বই প্রদানে দেশের বিত্তবানদের প্রতি উদাত্ত আহবান জানিয়েছেন। ০১৭১৬৮৫৬৭২৮

 

এই সংবাদ টি সবার সাথে শেয়ার করুন




দৈনিক ইন্টারন্যাশনাল.কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  © All rights reserved © 2018 dainikinternational.com
Design & Developed BY Anamul Rasel