সোমবার, ২৯ মে ২০২৩, ০২:৩৩ পূর্বাহ্ন

ঘোষনা :
  সম্পূর্ণ আইন বিষয়ক  দেশের প্রথম দৈনিক পত্রিকা   দৈনিক ইন্টারন্যাশনাল এর  পক্ষ থেকে সবাইকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা   । 
সংবাদ শিরোনাম :
স্ত্রী স্বামীর সংসারে না ফেরায় আইনগত প্রতিকার বনাম বাস্তবতা! মিথ্যা মামলায় জড়িত হলে কিভাবে প্রতিশোধ নিবেন? Protecting bidi industry from aggression of BAT demanded in Kushtia বাপ দাদা ও নানা বাড়ির সম্পত্তি কিভাবে উদ্ধার করবেন? বাবাকে ভর্তি কমিটিতে না রাখায় কর্মকর্তা সমিতির সভাপতিকে লাঞ্ছিত করলো ছাত্রলীগ সম্পাদক তালাকপ্রাপ্তা স্ত্রীর যৌতুক মামলা বনাম আইনী বাস্তবতা! সাংবাদিকের বিরুদ্ধে বিষোদগার বনাম মানির মান আল্লাহ রাখার গল্প! ব্যাচ ভিত্তিক অনুষ্ঠানে দ্বন্দ্বের জেরে বহিরাগতদের নিয়ে সহপাঠীকে মারধর চিরকালের রবীন্দ্রনাথ ও পদ্মা প্রবাহ চুম্বিত শিলাইদহ পূর্ণাঙ্গ কমিটি পাচ্ছে ইবি ছাত্রলীগ, জীবনবৃত্তান্ত জমা দিলেন পদপ্রত্যাশীরা
শৈলকুপার কৃতি সন্তান ফরিদ হোসেন এখন মাগুরার এডিসি

শৈলকুপার কৃতি সন্তান ফরিদ হোসেন এখন মাগুরার এডিসি

 

সিরাজ প্রামাণিকঃ মাগুরায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক হিসেবে যোগ দিলেন ঝিনাইদহ জেলার শৈলকুপা উপজেলার কৃতি সন্তান ফরিদ হোসেন। ২৭তম ব্যাচের এ কর্মকর্তা অত্যন্ত সৎ, দক্ষ ও কর্মঠ এবং দায়িত্ববান হিসেবে প্রশাসনে পরিচিত। এর পূর্বে তিনি নিষ্ঠার সাথে সাতক্ষীরার তালায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার, মেহেরপুরে সহকারী কমিশনার (ভূমি)হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন। তিনি যোগদান করে প্রথম কর্ম দিবসে মাগুরার জেলা প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরের প্রধান, প্রশাসনিক কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।

উল্লেখ্য, মোঃ ফরিদ হোসেন ৭ ফেব্রুয়ারী ১৯৭৪ সালে শৈলকুপার পুরাতন বাখরবা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি বেণীপুর বহুমুখী মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে এস এস সি, ঢাকার তেজগাঁও কলেজ থেকে এইচ এস সি এবং রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রী অর্জন করেন। ২৭ তম বিসিএস এ উত্তির্ণ হয়ে তিনি প্রশাসন ক্যাডারে যোগদান করেন। পদোন্নতি পেয়ে ৭জুন ২০১৮ মাগুরার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক হিসেবে যোগদান করেছেন।

সম্প্রতি তালা উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিসেবে তার উপর অর্পিত দ্বায়িত্ব যথাযথ পালন করতে গিয়ে তিনি স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের বিরাগভাজন হয়ে উঠেন। যখন কোন সরকারী কর্মকর্তা স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের অনৈতিক কর্মকা-কে সমর্থন করেন না, তখনি তিনি তাদের রোষানলে পড়েন। এটা থেকে সহজেই অনুমান করা যায় তার মধ্যে সততা, নীতি, আদর্শ আছে। একজন দক্ষ প্রশাসক হিসেবে তিনি তালার সাধারণ মানুষের আস্থা ও বিশ্বাসের প্রতিক হয়ে উঠেছিলেন। তাঁর কাছ থেকে অনৈতিক সুযোগ সুবিধা না পেয়ে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা তার বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছিলেন এবং তাকে সরিয়ে দিতে নানা তৎপরতা শুরু করেছিলেন। মিডিয়ার কল্যাণে এগুলো গভীরভাবে সমাজের বিবেকবান মানুষ প্রত্যক্ষ করেছেন। তিনি একান্ত সাক্ষাৎকারে এ প্রতিবেদককে নিচের কবিতাটি আবৃত্তি করে শুনিয়েছেন।

“অসত্যের কাছে কভু নত নাহি হবে শির,
ভয়ে কাঁপে কাপুরুষ লড়ে যায় বীর”

এই সংবাদ টি সবার সাথে শেয়ার করুন




দৈনিক ইন্টারন্যাশনাল.কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  © All rights reserved © 2018 dainikinternational.com
Design & Developed BY Anamul Rasel